ঢাকা, আজ সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০

এবার কার রেসিংয়ে অংশ নিলেন সৌদি নারী

প্রকাশ: ২০১৯-০২-১৫ ১৪:২১:৩৭ || আপডেট: ২০১৯-০২-১৫ ১৪:২১:৩৭

গতবছরের মাঝামাঝি সময়ে গাড়ি চালাতে সৌদি নারীদের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছিল দেশটির সরকার।

গত বছরের ২৪ জুন থেকে সৌদি নারীরা রাজপথে গাড়ি চালাতে পারবেন বলে ঘোষণা দেয় তারা।

এর আগে ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আব্দুল আজিজ একটি রাজকীয় ডিক্রি জারি করে ইসলামিক আইন অনুসারে নারীদের রাস্তায় গাড়ি চালানোর অনুমতি দেন।

নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার পর থেকেই গাড়ি চালানোয় নারীদের স্বত:স্ফূর্ত অংশগ্রহণ ছিল চোখে পড়ার মতো।

সেলক্ষ্যে একই মাসে রাজধানী রিয়াদসহ বিভিন্ন শহরে ১০ নারী তাদের আন্তর্জাতিক লাইসেন্সের সঙ্গে সৌদি লাইসেন্সের অদলবদল করে।

তবে সম্প্রতি সৌদির এক নারী রেসিং কারের স্টিয়ারিং হাতে নিলেন।

রেসিং কার চালিয়ে রীতিমতো বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিলেন রীমা আল জুফালি নামের ওই নারী।

গত বছরের জুন মাসে ১০ নারীর লাইসেন্স প্রাপ্তদের মধ্যে তিনিও ছিলেন।

জানা গেছে, ফর্মুলা কার রেসিং স্কুলে প্রশিক্ষণ নিয়েছেন রীমা। কলেজে পড়ার সময় ফর্মুলা ওয়ানের প্রতি ঝোঁক ওঠে তার।

অপেক্ষাটা শুধু ছিল রাষ্ট্রীয় নিষেধাজ্ঞা উঠিয়ে নেয়ার দিকে।

সৌদি নারী হয়ে গাড়ির রেসে নিজের নাম লেখাতে কম কাঠখড় পোড়াতে হয়নি রীমাকে।

রেসিং প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে চার বছর ধরে পরিবারকে বুঝিয়ে অবশেষে রাজি করেন জেদ্দার অধিবাসী রীমা।

এ বিষয়ে আরবীয় এক সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেন, প্রথমে তার ইচ্ছার বিরোধিতা পরিবারসহ অনেকেই করেছেন। তবে এখন তার দশ গুণ মানুষকে তিনি তার সমর্থনে পাশে পাচ্ছেন।

গেল অক্টোবরেই প্রথম রেসে অংশ নেন রীমা। সেটা ছিল জিটি ৮৬ কার দিয়ে।

গত ডিসেম্বরে একটি রেস জিতেছেন এই সৌদি নারী রেসার।