ঢাকা, আজ সোমবার, ২ আগস্ট ২০২১

এনটিএমসি’কে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার প্ল্যাটফর্ম হিসেবে গড়ার প্রস্তাব

প্রকাশ: ২০১৯-০২-২১ ১০:২৯:২১ || আপডেট: ২০১৯-০২-২৪ ১৪:০৬:৩০

অপরাধে তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহার রোধে ন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন মনিটরিং সেন্টারকে (এনটিএমসি) দেশের সব আইন প্রয়োগকারী ও গোয়েন্দা সংস্থার জন্য প্ল্যাটফর্ম হিসেবে গড়ে তোলার প্রস্তাব দেয়া হয়েছে।
বুধবার (২০ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীসহ বিভিন্ন বাহিনী ও সংস্থার প্রধানরা পরিদর্শনের সময় এনটিএমসি’র পক্ষ থেকে এ প্রস্তাব দেয়া হয়। বিষয়টি প্রধানমন্ত্রীকে অবহিত করার আশ্বাস দেন মন্ত্রী।
এদিকে, এনটিএমসি’র পরিচালক জানান, জাতীয় নির্বাচনের আগে ও পরে প্রায় ২ হাজার ভুয়া ফেইসবুক আইডি, পেইজ এবং ওয়েব সাইট বন্ধ করা হয়েছে।
টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তির বিকাশের সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়তে থাকা সাইবার অপরাধ বিশ্বজুড়েই আইন প্রয়োগকারী সংস্থাগুলোর জন্য বড় চ্যালেঞ্জ। তবে অপরাধীর নাগাল পাওয়াও সহজ করে দিয়েছে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি। ন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন মনিটরিং সেন্টারের পরিসংখ্যান বলছে, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে ও পরে তার সুফল পেয়েছে দেশের আইন প্রয়োগকারী ও গোয়েন্দা সংস্থাগুলোও।
এ সময় ১ হাজার ৯শ’ ৬টি ফেসবুক আইডি ও পেইজ এবং ওয়েবসাইট বন্ধ করা হয়। যার মধ্যে প্রধানমন্ত্রী ও তাঁর পরিবারের সদস্য, সেনা, নৌ ও বিমানবাহিনী এবং বিভিন্ন সংস্থার নামে খোলা ভুয়া আইডি ও পেইজ এবং জঙ্গি প্রচারণায় ব্যবহৃত ১৪১টি ফেসবুক আইডি ছিল। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং বিভিন্ন বাহিনী ও সংস্থার প্রধানদের এনটিএমসি’র কার্যক্রম নিয়ে ব্রিফ করা শেষে সংস্থার প্রধান জানালেন, গুজব ঠেকানোর ওপর বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছেন তারা।
এনটিএমসি পরিচালক ব্রি. জে. জিয়াউল আহসান বলেন, ‘সাঈদীকে চাঁদে দেখা গেছে এ গুজবে পরদিন বাংলাদেশে ২২ জন মারা যান। গুজব বন্ধ করার জন্য এনটিএমসি এবং বিটিআরসি একসাথে কাজ করছে। যেভাবেই গুজব ছড়ানোর কাজ চালাই না কেন আমরা তার বিরুদ্ধে কাজ করছি।’
বৈঠকে এনটিএমসি’কে নিরাপত্তা ও অপরাধ সংক্রান্ত তথ্য আদান প্রদানের কমন প্ল্যাটফর্ম হিসেবে গড়ে তোলার প্রস্তাব তোলেন সংস্থার পরিচালক। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, বিষয়টি প্রধানমন্ত্রীকে জানানো হবে।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আদাসুজ্জামান খান কামাল বলেন, এনটিএমসি’কে আমরা আরো সমৃদ্ধ করবো, শক্তিশালী করবো। এমটিএমসি’র একটা প্রস্তাব রয়েছে তা আমাদের বিবেচনায় থাকবে। প্রস্তাবনার বিষয়টি আমরা প্রধানমন্ত্রীকে জানাবো, যাতে একটা কমন প্ল্যাটফর্ম তৈরি করা যায়, যাতে সেখান থেকে সব তথ্য গোয়েন্দা সংস্থা পায়।
‘সবার আগে দেশ’ এই স্লোগানকে সামনে নিয়ে ২০১৩ সালে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীনে স্বতন্ত্র সংস্থা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে এনটিএমসি।