ঢাকা, আজ রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০

‘অর্থের যোগান পেতে ডাকাতির পথ বেছে নিয়েছে জঙ্গিরা’

প্রকাশ: ২০১৯-০৩-০৫ ১০:৩৬:৩৮ || আপডেট: ২০১৯-০৩-০৫ ১০:৩৬:৩৮

জঙ্গিরা অর্থের যোগান পেতে এখন ডাকাতির পথ বেছে নিয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। রাজধানী থেকে ডাকাত দলের ১২ সদস্য ও হারকাতুল জিহাদের দুই সদস্যকে আটকের পর এ তথ্য জানিয়েছে গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার আব্দুল বাতেন। এদিকে, আলাদা অভিযানে রাজধানীর উত্তরা থেকে ডাকাত চক্রের ৯ জনকে আটক করেছে র‌্যাব।

পুলিশ জানায়, রোববার রাতে রাজধানীর ধোলাইপাড়ে ব্যাংক ডাকাতির প্রস্তুতির সময় ১২ জনকে আটক করে গোয়েন্দা পুলিশ। ডাকাত দলের সদস্য আতিকের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে হারকাতুল জিহাদের দুই সদস্যকে রামপুরা থেকে আটক করা হয়।

আটকদের কাছ থেকে আগ্নেয়াস্ত্র ও গানপাউডার জব্দ করা হয়। হুজি সদস্য হাফিজ ও মামুন জঙ্গি সংগঠনের অর্থের যোগান দিতে ডাকাতির অর্থ খরচ করতো।

সোমবার (৪ মার্চ) সকালে রাজধানীর মিন্টো রোডে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে এ বিষয়ে ব্রিফিং করেন গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার আব্দুল বাতেন। তিনি বলেন, তাৎক্ষণিকভাবে ক্যাশ টাকা সংগ্রহ করা যায়। কিংবা এমন কোনো বস্তু যেটা খুবই দামি। যেটা বিক্রি করে টাকা পাওয়া যাবে। এ ধরনের প্রতিষ্ঠানই তারা টার্গেট করে। এই টাকার ৩০ শতাংশ যারা অস্ত্র সরবরাহ করে তার পায়। বাকি অর্থ সাংগঠনিক কাজে ব্যয় করে।

এদিকে, রোববার রাতে রাজধানীর দিয়াবাড়ি থেকে সংঘবদ্ধ ডাকাত চক্রের মূল হোতাসহ ৯ সদস্যকে আটক করে। দিয়াবাড়িতে ঘুরতে যাওয়া মানুষদের টার্গেট করে রাতের আঁধারে ডাকাতি করতো দলটি। আটককৃতদের কাছ থেকে আগ্নেয়াস্ত্র, কার্তুজসহ ডাকাতির বিভিন্ন সরঞ্জাম এবং তাদের ব্যবহৃত কয়েকটি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়। দলের মূল হোতা স্বাধীনসহ অন্যরা ইয়াবা সেবনকারী ও ইয়াবার টাকা জোগাড়ের উদ্দেশে ডাকাতি করতো বলে জানায় র‌্যাব।

র‌্যাব ও পুলিশ কর্তৃক আটককৃতদের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে ও সন্ত্রাস দমন আইনে মামলা দায়েরের পর আদালতের হাতে সোপর্দ করা হয়